আমলকির হেয়ার প্যাক - আমলকির তেল তৈরির নিয়ম


আপনি কি আমলকির হেয়ার প্যাক ও আমলকির তেল তৈরির নিয়ম সম্পর্কে জানেন? হ্যাঁ বন্ধুরা আজকে আমরা আলোচনা করব আমলকির হেয়ার প্যাক এবং আমলকির তেল তৈরির নিয়ম সম্পর্কে।আমলকির হেয়ার প্যাক আর্টিকেলটিতে আমলকির ব্যবহার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

আমলকি ফলটি বহু গুনে ভরা। খাওয়া থেকে শুরু করে এই ফলটির রয়েছে নানা রকমের ব্যবহার। আমলকির হেয়ার প্যাক ও আমলকির তেল তৈরির নিয়ম আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনারা এই সম্পর্কিত বিস্তারিত জানতে পারবেন ইনশাল্লাহ। তাহলে চলুন কথা না বাড়িয়ে আলোচনা শুরু করা যাক।

পোস্ট সূচীপত্র : আমলকির হেয়ার প্যাক - আমলকির তেল তৈরির নিয়ম

চুলের যত্নে আমলকি ও মেথি  

আমাদের সকলের পরিচিত একটি ফল হচ্ছে আমলকি। এটি যেমন দামের সস্তা এবং সহজলভ্যও বটে।এর রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা। চলুন চুলের যত্নে আমলকি ও মেথি কিভাবে ব্যবহার সম্পর্কে জেনে নিই।

চুলের জন্য সবচেয়ে পুষ্টিকর উপাদান আমলকি। আমলকিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, মিনারেল এবং খনিজ উপাদান। আমলকি চুলের টনিক হিসেবে কাজ করে এছাড়াও চুলের পরিচর্যার জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। চুলের গোড়া মজবুত করে তা নয় চুল দ্রুত গতিতে বড় করতেও সাহায্য করে। চুলের আগা ফাটা, চুল রুক্ষ হয়ে যাওয়া, অসময়ে চুলপাকা ইত্যাদিতে ভীষণভাবে কার্যকরী আমলকি। 

আমলকি চুলের পুষ্টি এবং চুলকে শক্তিশালী করতে সাহায্য করে। চুলের কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে থাকে যার জন্য চুল হয়ে ওঠে উজ্জ্বল, আকর্ষণীয়। আমলকিতে থাকা ভিটামিন সি অসময়ে চুল পাকা প্রতিরোধ করে। আমলকির হেয়ার প্যাক পোস্টটিতে আমলকি চুলে কিভাবে ব্যবহার করবেন জানতে চান? এটি ব্যবহার প্রক্রিয়া অনেক সহজ। প্রশ্নের আমলকি ভালোভাবে ধুয়ে টুকরো টুকরো করে কাটুন।তারপর রোদে শুকান। 

আরো পড়ুন পেয়ারা পাতার ২৫ টি উপকারিতা ও অপকারিতার বিস্তারিত

আমলকি গুলো রোদে শুকানো হয়ে গেলে গুঁড়ো করুন। সেই আমলকির গুঁড়ো তেলের সাথে মিশিয়ে গরম গরম। এই মিশ্রণটি চুলে নিয়মিত মাখুন। এর ফলাফল আপনি নিজেই দেখতে পারবেন। চুলের নানা ধরনের সমস্যার সমাধানে মেথির কথা না বললেই নয়। কিন্তু কিভাবে ব্যবহার করবেন বা ব্যবহারে কি কি উপকারিতা তা অনেকেই জানিনা। মেথি চুল পড়া সমস্যার সমাধান করে এছাড়াও চুলের খুশকি দূর করতে, চুলের অকালপক্কতা রোধে, নতুন চুল গজাতে অনেক সাহায্য করে। ৫০০ গ্রাম মেথি ২০০ থেকে ৩০০ মিলি পানিতে ভিজিয়ে রাখুন সারা রাত। 

সকালে সেই পানিটুকু ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে নিন। এখান থেকে এক গ্লাস পানি খালি পেটে পান করুন। এই পানি প্রতিদিন পান করলে পেটের যাবতীয় পরিপাক জনিত সমস্যা দূর হবে এবং আপনার অতিরিক্ত ওজন থাকলে তা কমে যাবে। বাকি পানিটুকু বোতল ভর্তি করে রাখুন এবং আপনি আপনার চুলে এবং চুলের গোড়া থেকে আগ পর্যন্ত স্প্রে করুন। আঙ্গুলের আগা দিয়ে মেসেজ করুন চুলের গোড়ায়। এক ঘন্টা অপেক্ষা করার পর ধুয়ে ফেলুন। এই পদ্ধতি আপনার চুলে কে অনেক মজবুত করবে এবং চুল পড়া কমাতে সাহায্য করবে।

চুলে কাঁচা আমলকির ব্যবহার  

শরীরের পাশাপাশি আমলকি আমাদের চুলের অনেক উপকার করে থাকে। আমরা চুলে কাঁচা আমলকির ব্যবহার জানব। আপনার চুলের যত্নে কাঁচা আমলকির হেয়ার টনিক ব্যবহার করতে পারেন।টাটকা কাঁচা আমলকির রস আপনার চুলে লাগালে চুল দ্রুত বৃদ্ধি পায় এবং চুল পড়া বন্ধ হয়।

এছাড়া আপনি আপনার চুলে কাঁচা আমলকি ব্যবহার করতে পারবেন যার মাধ্যমে আপনার চুল হবে ঘন কালো উজ্জ্বল। এর জন্য আপনি আমলকি টুকরো করে কেটে পানি দিয়ে ৩০ মিনিট ফুটিয়ে নিন।ফুটে গেলে সেই পানিটুকু ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে ঠান্ডা করে নিন। এইবার এই মিশ্রণ দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন এতে আপনার চুল হবে নিবিড় কালো।

আমলকির রস চুলে দেওয়ার নিয়ম  

বন্ধুরা আমরা জানি কাঁচা আমলকিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং এন্টিঅক্সিডেন্ট। যা আমাদের চুলকে দ্রুত বড় করতে সাহায্য করে। আমলকির রস চুলের গোড়ায় মালিশ করলে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়। যা নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এছাড়াও কাঁচা আমলকির রস চুল পড়া বন্ধ করতে এবং চুলের আগা ফাটা রোধ করতে সাহায্য করো। 

আরো পড়ুন মসুর ডালের ১০ টি উপকারিতা এবং অপকারিতা সম্পর্কে জানুন

প্রথমেই কিছু কাঁচা আমলকি টুকরো টুকরো করে কেটে নিন। তারপর এই টুকরোগুলোকে ব্লেন্ডারে করে ব্লেন্ড করুন। ব্লেন্ডার করা হয়ে গেলে ছেঁকে রস বের করুন। এবার এর মধ্যে দুই চামচ লেবুর রস এবং দুই চামচ নারকেল তেল যোগ করুন। এবার খুব ভালো করে মিশ্রণটি মিশিয়ে নিন। এবারে এই মিশ্রণটি আপনার চুলে লাগিয়ে নিন এবং আঙ্গুলের সাহায্যে চুলের গোড়াতে মেসেজ করুন। আধা ঘন্টা রেখে দিন। তারপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে পুরা এক সপ্তাহ ব্যবহার করতে পারলে আপনি আপনার চুলের পরিবর্তন বুঝতে পারবেন।

আমলকি গুড়া করার নিয়ম 

আপনি কি আমলকি গুড়া করার নিয়ম জানেন? চলুন আমলকি গুড়া করার নিয়ম জেনে নিই। প্রথমেই কিছু আমলকি ভালো করে ধুয়ে টুকরো টুকরো করে কেটে নিন। এবারের সেই টুকরো করে কাটা আমলকি গুলোকে রোদে শুকাতে দিন। রোদে শুকানো হয়ে গেলে দেখবেন আমলকির রং ধূসর কালার হয়েছে। এবারে শুকানো আমলকিতে ব্লেন্ডারে করে ব্লেন্ড করুন। আমলকি শুকানোর পর অনেক শক্ত হয়ে থাকে। যার জন্য একটু সময় নিয়ে আপনাকে ব্লেন্ড করতে হবে।

আমলকি কি চুল পড়া বন্ধ করে  

আমাদের অনেকের প্রশ্ন আমলকি কি চুল পড়া বন্ধ করে? এক কথায় বলতে গেলে আমলকি আসলেই চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে। যদি আপনি যে কোন নিয়ম ফলো করে সেই নিয়ম অনুযায়ী চলেন।চুল পড়া রোধ করার জন্য আপনি আমলকির হেয়ার টনিক ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও খেতে পারেন আমলকির জুস। আমলকির পাউডার চুল পড়া বন্ধ করতে সাহায্য করে। 

আরো পড়ুন ৯ টি উপায়ে কিভাবে সুন্দর হওয়া যায় - রাতারাতি ফর্সা হওয়ার উপায়

অনেকেই চুল পড়া বন্ধ করার জন্য বাজার থেকে নানা ধরনের তেল কিনে থাকেন। যা ব্যবহার করে কোন উপকার পাওয়া যায় না। কিন্তু আমলকির এই প্রাকৃতিক উপাদান আপনি যদি বাসায় তৈরি করতে পারেন এবং নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন তাহলে এটি অবশ্যই কাজে দেবে। উক্ত বিষয় নিয়ে আমি ইতিমধ্যে আপনাদের সামনে আলোচনা করেছি। জেনে রাখুন আমলকি চুলের জন্য এবং আমাদের শরীরের জন্য খুবই একটি উপকারী উপাদান।

প্রিয় পাঠক আশা করছি আমাদের আজকের আমলকির হেয়ার প্যাক ও আমলকির তেল তৈরির নিয়ম এই পোস্টটি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। আমলকির হেয়ার প্যাক এবং আমলকির তেল তৈরির নিয়ম সম্পর্কে আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করেছি। যদি আমাদের আমলকির হেয়ার প্যাক আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। এই ধরনের আরো আর্টিকেল পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন। আজকের মত বিদায় নিচ্ছি সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ। ২৩২৬১

Popular posts from this blog

যৌন শক্তি বৃদ্ধির দোয়া - শারীরিক শক্তি বৃদ্ধির দোয়া

কি খেলে বীর্য অনেক ঘন হয় এবং দ্রুত বীর্য পাত বন্ধ হয়?

গণতন্ত্রের সুফল ও কুফল - গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্য