ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম - বিয়ের নিয়ম নীতি


ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে অনেকেই জানেন না তাই হয়তো ইন্টারনেটে সার্চ করে আমাদের পোস্ট টি ওপেন করেছেন। আজকের পোস্ট টিতে ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবেন তো চলুন জেনে নিন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত।

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া দ্রুত বিয়ের দোয়া বিয়ের নিয়ম নীতি এবং ইসলামিক বিয়ের সাজ কেমন হওয়া উচিত এগুলো সকল বিষয় থাকছে আজকের এই পোস্ট টিতে তাই পোস্ট টি শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন। 

পেজ সূচিপত্রঃ ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম - বিয়ের নিয়ম নীতি 

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম

আমরা যেহেতু মুসলমান তাই আমাদের সকলের জানা প্রয়োজন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম এবং বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে। তাই যারা ইসলামিক বিয়ে পোড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে ইন্টারনেটে সার্চ করে আমাদের পোস্টটি ওপেন করেছেন তাদের জন্য অনেক উপকারী হবে তাহলে চলুন জেনে নিন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত।

আপনারা হয়তো বেশিরভাগ মানুষ ই জেনে থাকবেন বিবাহ হলো ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিধানের মধ্যে পড়ে। মহান আল্লাহ একজন মানুষ কে সৃষ্টি করার পরেই তার জন্য কিছু চাহিদা দিয়ে দিয়েছেন সেই সাথে সেই চাহিদা মেটানোর পথ বা পদ্ধতি ও দিয়ে দিয়েছেন। আমাদের মানব জীবনে অনেক চাহিদা আছে তার ভেতর হলো খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান,চিকিৎসা, শিক্ষা এবং আরো অনেক কিছু কিন্তু এই কয়টা মানুষের মৌলিক চাহিদা। 

আরো পড়ুনঃ রবিউল আউয়াল মাসে বিয়ে করার ফজিলত সম্পর্কে বিস্তারিত

মানুষের যেমন মৌলিক চাহিদা আছে তেমন জৈবিক চাহিদা আর আর সেই চাহিদা পূরণ করার জন্য মহান আল্লাহ বিয়ের নিয়ম নীতি করে দিয়েছেন। ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম হলো কালমা পড়িয়ে পাত্র এবং পাত্রীর মুখে থেকে কবুল বলানো তারপর দোয়া করে বিয়ে সম্পূর্ণ করা। আশা করছি বুঝতে পারলেন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম সম্পর্কে। এখন চলুন নিচের অংশে জেনে নিন বিয়ের নিয়ম নীতি কেমন হওয়া প্রয়োজন বা হয়ে থাকে। 

বিয়ের নিয়ম নীতি 

বিয়ের আগে আমাদের দেশের নিয়ম অনুযায়ী এবং ইসলামি মোতাবেক কিছু বিয়ের নিয়ম নীতি রয়েছে। আর সেই বিয়ের নিয়ম নীতি মেনে বিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে। আবার অনেকেই বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে জানেন না তাই জানতে চান তো চলুন বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

প্রত্যেকটা জীব কে আল্লাহ দুনিয়াতে পাঠানোর পরে তার জোড়া দিয়ে দিছেন মানুষ এর ও তেমন ই সৃষ্টির পরেই তার ভাগ্য লিখা হয়ে যায় তার স্ত্রী কে হবে সেটাও লিখা হয়ে যায়। বিয়ের নিয়ম হলো কোনো ছেলে মেয়ের যদি বিয়ের বয়স হয় তাহলে উভয়ের পিতামাতা বা অবিভাবক বিয়ের প্রস্তাব দিবেন। তারপর যদি উভয়ের পিতামাতা প্রস্তাবে রাজি থাকেন বা হন তাহলে ছেলে এবং মেয়ে একে অপরকে দেখে তাদের সিদ্ধান্ত জানাবে। 

যদি সব দিক দিয়ে সবার মতামত মিলে এবং সবাই রাজি হয় তাহলে নিদিষ্ট একটা সময় নির্ধারণ করে এবং দুইজন সাক্ষী নিয়ে মেয়ের পিতামাতা বা অভিভাবক একটা নিদিষ্ট মহরানা এর বিনিময়ে ছেলের সাথে বিয়ের জন্য বলবে আর ছেলে যদি তা মেনে নিয়ে কবুল করে তাহলে বিয়ে হয়ে যাবে। আশা করছি বুঝতে পারলেন বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে। এখন চলুন নিচের অংশে জেনে নিন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া কি।

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া

উপরের অংশে আপনারা ইতোমধ্যে জানতে পেরেছেন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম এবং বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে। কিন্তু আবার অনেকে বিয়ে পড়ানোর দোয়া কি তা জানতে চান তাই এই অংশে জানতে পারবেন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া কি। তো চলুন জেনে নিন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া কি।

আরো পড়ুনঃ আপনার বিয়ে কার সঙ্গে হবে জেনে নিন

অনেকে মনে করে থাকেন যে হুজুর বা আলেম ছাড়া মেয়ের পিতা বিয়ে পড়াতে পারবে না এটা আসলে ভুল মেয়ের পিতা যদি বিয়ে পড়াতে পারে তাহলে সেই পিতা নিজেই বিয়ে পড়ানোর দোয়া ও খুতবা পড়ে তার মেয়েকে বিবাহ দিতে পারে। আর মেয়ের বাবা যদি তা না পারেন তাহলে যেকোনো হুজুর বা কাজী বিয়ে পড়াবে।

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া হলো -

আম্মা বাদ ফাইয়া আইয়্যুহাল মুসলিমুন কালাল্লাহু তায়ালা। ওয়ামিন আয়াতিহি আন খালাকা লাকুম মিন আনফুসিকুম আযওয়াজান লিতাসকুনূ ইলা ইহা ওয়াজা আলা বাইনাকুম মাও ওয়াদ্দাতাও ওরাহমাহ। ইন্না ফি যালিকা লা আয়াতিল লিকাওমিই ইয়াতা ফাক্কারুন।

ওয়া কালা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আন নিকাহু মিন সুন্নাতি ফামানলাম ইয়াফআল বিসুন্নাতি ফালাইসা মিন্নী ওয়াতা যাওয়াজু ফাইন্নি মুকাসিরুন বিকুমুল উমাম। ক্বলা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম  ইয়া মাশারাশ শাবাব মানিস তাত্বয়া মিনকুমুল বয়াতা ফালিয়া তাযা ওয়াজ। ফাইন্নাহু আগাযু লিল বাসারি ওয়া  আহসানু লিল ফারজি ওমান লাম ইয়াস তাততি ফা আলাইহিবিস সাওম। আযয়ুহাল শাবাব বারাকাল্লাহু লাকা ওয়া বারাকা আলাইকা ওয়াজা মাআা বাইনাকুম ফি খাইর।

সূত্র ঃ amarishtihar.com

দ্রুত বিয়ের জন্য দোয়া

উপরের অংশে আপনারা ইতোমধ্যে জানতে পেরেছেন ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম এবং বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে বিয়ে পড়ানোর দোয়া কি তাও জানলেন এখন যারা দ্রুত বিয়ে করার দোয়া জানতে চান তারা দেখে নিন এই অংশ টি। দ্রুত বিয়ের জন্য দোয়া হলোঃ রাব্বি ইন্নি লিমা আন্ যালতা ইলাইয়া মিন খাইরিন ফাকির। 

আরো পড়ুনঃ এই আধুনিক যুগে বিয়ের বয়সসীমা কত হওয়া উচিত? 

তবে আপনির দোয়ার পাশাপাশি আপনাকে হালাল উপার্জন করতে হবে সৎ পথে চলতে হবে আল্লাহর এবাদত করতে হবে বেশি বেশি। তাহলে ইনশাআল্লাহ খুব দ্রুত বিয়ে করতে পারবেন। আশা করছি বুঝতে পারলেন দ্রুত বিয়ের জন্য কি কি করবেন।

ইসলামিক বিয়ের সাজের ছবি

আপনার ইতোমধ্যে ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম এবং বিয়ের নিয়ম নীতি ও বিয়ে পড়ানোর দোয়া সম্পর্কে জেনে ফেলেছেন  এখন এই অংশে দেখে নিন কিছু ইসলামিক বিয়ের সাজের ছবি।

সোর্সঃ en.wikipedia.org

ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম - বিয়ের নিয়ম নীতিঃ শেষ কথা  

আজকের এই পোস্ট টিতে আলোচনা করা হয়েছে ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর নিয়ম বিয়ের নিয়ম নীতি ইসলামিক বিয়ে পড়ানোর দোয়া দ্রুত বিয়ের জন্য দোয়া ইসলামিক বিয়ের সাজের ছবি আশা করছি আজকের পোস্ট টি পড়ে আপনারা বিয়ের নিয়ম নীতি সম্পর্কে ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। এই পোস্ট পড়ার পরে যদি কোনো বিষয় জানার থাকে তাহলে তা কমেন্ট করে জানতে পারেন। এরকম আরো পোস্ট পড়তে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ফলো করুন। এতোক্ষণ সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। ২৩৩৫৭ 

Popular posts from this blog

যৌন শক্তি বৃদ্ধির দোয়া - শারীরিক শক্তি বৃদ্ধির দোয়া

কি খেলে বীর্য অনেক ঘন হয় এবং দ্রুত বীর্য পাত বন্ধ হয়?

গণতন্ত্রের সুফল ও কুফল - গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্য